1. info@dainikashardigonto.com : দৈনিক আশার দিগন্ত : দৈনিক আশার দিগন্ত
  2. info@www.dainikashardigonto.com : দৈনিক আশার দিগন্ত :
মঙ্গলবার, ১৬ জুলাই ২০২৪, ০২:৩৯ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :

ধুনটে নাংলু ফাজিল ডিগ্রী মাদ্রাসার ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষকের হাতে চতুর্থ শ্রেণীর কর্মচারী লাঞ্ছিত

  • প্রকাশিত: বুধবার, ১২ জুন, ২০২৪
  • ১২৬ বার পড়া হয়েছে

এম,এ রাশেদ,স্টাফ রিপোর্টারঃ

বগুড়া ধুনট উপজেলা নাংলু এম,কে,এম ফাজিল (ডিগ্রী) মাদ্রাসার চতুর্থ শ্রেণীর কর্মচারী এম,এল,এস,এস পদের দাবিদার আফেলা খাতুনকে লাঞ্ছিত করার অভিযোগ উঠেছে ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ মোঃ ফজলুল করিমের বিরুদ্ধ। (১২ই জুন) সকাল অনুমান ১০ টার দিকে উপজেলার ১নং নিমগাছি ইউনিয়নের নাংলু এম,কে,এম ফাজিল (ডিগ্রী) মাদ্রাসায় এ ঘটনা ঘটে।ক্তভোগী সূত্রে জানান, গত ১৫ মে ২০১২ তারিখে নাংলু এম,কে,এম ফাজিল (ডিগ্রী) মাদ্রাসার এম,এল,এস,এস পদের নিয়োগপত্র প্রদান করে দায়িত্বভার গ্রহণ করে।ঘটনার দিন বুধবার সকালে চতুর্থ শ্রেণীর কর্মচারী আফেলা খাতুন নাংলু এম,কে,এম,ফাজিল (ডিগ্রী) মাদ্রাসায় এসে হাজিরা খাতায় সই করতে গেলে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ মোঃ ফজলুল করিম তার কাছ থেকে জোর করে হাজিরা খাতা কেড়ে নেয়। এবং চতুর্থ শ্রেণীর কর্মচারীকে বলেন এখানে চাকরি করতে হলে আমাকে আরো অতিরিক্ত টাকার দাবি করেন। তখন চতুর্থ শ্রেণি কর্মচারী টাকা দিতে অস্বীকার করিলে তাহাকে অশ্লিল ভাষায় গালিগালাজ ও অপমান করে ঘাড় ধাক্কা দিয়ে প্রতিষ্ঠান থেকে বের করে দেন বলে জানান চতুর্থ শ্রেণীর কর্মচারী দাবিদার ব্যক্তি আফেলা খাতুন।অক্ত প্রতিষ্ঠানের সভাপতি মোঃ মাসুদ আলম এর ব্যক্তিগত মোবাইল ফোনে যোগাযোগ করিলে তিনি সংবাদ কর্মীদের জানান, নাংলু এম,কে,এম ফাজিল (ডিগ্রী) মাদ্রাসার চতুর্থ শ্রেণীর কর্মচারী দাবি করা ব্যক্তি আফেলা খাতুন তিনি নাংলু এম,কে,এম ফাজিল ডিগ্রী মাদ্রাসার চতুর্থ শ্রেণীর কোন কর্মচারী না। এবং তার চতুর্থ পর্যায়ের এম,এল,এস,এস পদের নিয়োগপত্রের কোন কাগজপত্র নেই এই শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে আমি পাই নাই।

ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ মোঃ ফজলুল করিম বলেছেন, আফেলা খাতুন, নাংলু এম কে এম ফাজিল ডিগ্রী মাদ্রাসার চতুর্থ শ্রেণীর কোন কর্মচারী না, তিনি আমার বিরুদ্ধে যে অভিযোগ উঠেছে তাহা সম্পূর্ণ মিথ্যা ও ভিত্তিহীন, যেহেতু তিনি আমার প্রতিষ্ঠানের কেউ না তার কাছ থেকে কোন টাকা চাওয়ার প্রশ্ন উঠে না। ১২ই জুন বুধবার দুপুর অনুমান ১২টার দিকে নাংলু এম কে এম ফাজিল ডিগ্রী মাদ্রাসায় সরজমিনে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের গিয়ে আফেলা খাতুনকে লাঞ্ছিত করার বিষয়টি জিজ্ঞাসা করলে সকল শিক্ষক বিষয়টি জানা নাই বলে জানান।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো সংবাদ পড়ুন
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত
𝐂𝐫𝐚𝐟𝐭𝐞𝐝 𝐰𝐢𝐭𝐡 𝐛𝐲: 𝐘𝐄𝐋𝐋𝐎𝐖 𝐇𝐎𝐒𝐓