1. info@dainikashardigonto.com : দৈনিক আশার দিগন্ত : দৈনিক আশার দিগন্ত
  2. info@www.dainikashardigonto.com : দৈনিক আশার দিগন্ত :
মঙ্গলবার, ২৩ জুলাই ২০২৪, ১১:০১ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
সরিষাবাড়ীতে কোটা আন্দোলনকারী নিহত শিক্ষার্থীদের স্মরণে গায়েবানা জানাজা অনুষ্ঠিত ও প্রতিবাদ সমাবেশ নড়াইলে পুকুরে গোসল করতে নেমে দশম শ্রেনির মর্মান্তিক ছাত্রীর মৃত্যু বগুড়ার শেরপুরে ছিনতাই হওয়া কোচ থেকে লাফ দেয়ায় বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীর মৃত্যু জাবিতে মুখোমুখি পুলিশ ও কোটাবিরোধীরা নড়াইল শেখ রাসেল ক্রীড়া চক্রের পৌর মেয়র আনজুমান আরা সভাপতি নির্বাচিত উল্টোরথের মেলা ঢাকার দোহারে তীব্র লোডশেডিং অতিষ্ঠ জনজীবন ভারতের সিকিমের প্রাক্তন শিক্ষামন্ত্রীর লাশ ভেসে এলো লালমনিরহাটে নড়াইলে মধুমতি নদী থেকে গলিত মরদেহ উদ্ধার বগুড়া শেরপুরে কোটা বিরোধী শিক্ষার্থীদের সাথে পুলিশের সংঘর্ষ, সাংবাদিক, পুলিশ ও শিক্ষার্থী সহ আহত ২০ 

বগুড়ার শিবগঞ্জে বড় ভাইয়ের লাঠির আঘাতে ছোট ভাই খুন

  • প্রকাশিত: শনিবার, ৩০ মার্চ, ২০২৪
  • ৮২ বার পড়া হয়েছে

এম,এ রাশেদ,স্টাফ রিপোর্টারঃ

বগুড়ার শিবগঞ্জ উপজেলায় বড় ভাইয়ের লাঠির আঘাতে তিন দিন চিকিৎসাধীন থাকা অবস্থায় ছোট ভাই শাহিনুরের (৪৫) এর মৃত্যু হয়েছে। এ মৃত্যুকে সকলে পরিকল্পিত খুন বলে অবিহিত করেছে। এ ঘটনায় বাদী হয়ে নিহতের স্ত্রী শাহানারা বেগম ৫ জনের নামে শিবগঞ্জ থানায় মামলা করেছে।এর আগে গত বুধবার বিকাল ৪টার দিকে পার্শ্ববর্তী একটি গাছের ডাব পারাকে কেন্দ্র করে অভিযুক্তরা শাহিনুরকে পিটিয়ে গুরুত্বর আহত করে। গত শুক্রবার সন্ধ্যা সাড়ে ৭টায় চিকিৎসাধীন অবস্থায় ছোট ভাই শাহিনুর ইসলাম বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে মারা যায়। সে উপজেলার রায়নগর ইউনিয়নের ঘাগুরদুয়ার গ্রামের ইসমাইল হোসেন চাঁনের ২য় পুত্র।শাহিনুর ইসলামের মৃত্যুর খবরে অভিযুক্ত বড় ভাই শহিদুল ইসলাম, পিতা ইসমাইল হোসেন চাঁন, ভাতিজা মেহেদী হাসান, ভাবী মুক্তা বেগমসহ লাপাত্তা হয়ে যায়।প্রত্যক্ষদর্শী আমিনুল বলেন, শুক্রবার বিকেলে মৃত্যুর খবর পেয়ে শহিদুল ও তার ছেলে মেহেদী হাসান এলাকা থেকে পালাতে গেলে আমিসহ গ্রামবাসী তাদের ধরে ফেলে। কিন্তু গ্রামের মোড়ল মিঠু ও তার সহযোগী শহিদুল পেশী শক্তি দেখিয়ে হত্যাকারীদের আমাদের নিকট থেকে ছিনিয়ে নিয়ে পালিয়ে দেয়।

নিহতের ছেলে আজিজুল বলেন, আমার পিতাকে আমার বড় চাচা শহিদুল ইসলাম, তার ছেলে মেহেদী হাসান, দাদা ইসমাইল হোসেন চাঁন ও বড় চাচী মুক্তা বেগম বেধরক ভাবে মারপিট করে আহত করে। ৩দিন চিকিৎসাধীন অবস্থায় আমার বাবা মার যায়। আমার পিতার খুনিদেরকে যারা পালাতে সহযোগিতা করেছে তাদের ও খুনীদেরকে বিচারের আওতাঁয় নিয়ে এসে সঠিক আইনী পদক্ষেপ গ্রহণের জন্য প্রশাসনের নিকট দাবী জানাচ্ছ। শিবগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আব্দুর রউফ বলেন, খুনের বিষয়ে খবর পেয়ে তাৎক্ষনিক পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে। এ ঘটনায় নিহতের স্ত্রী বাদী হয়ে ৫ জনের বিরুদ্ধে থানায় মামলা দায়ের করেছে। আসামীদের গ্রেফতারে অভিযান অব্যহত রয়েছে।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো সংবাদ পড়ুন
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত
𝐂𝐫𝐚𝐟𝐭𝐞𝐝 𝐰𝐢𝐭𝐡 𝐛𝐲: 𝐘𝐄𝐋𝐋𝐎𝐖 𝐇𝐎𝐒𝐓