1. info@dainikashardigonto.com : দৈনিক আশার দিগন্ত : দৈনিক আশার দিগন্ত
  2. info@www.dainikashardigonto.com : দৈনিক আশার দিগন্ত :
রবিবার, ১৪ জুলাই ২০২৪, ০৭:৩৩ অপরাহ্ন

কালিয়াকৈরে বন বিট কর্মকর্তার বিরুদ্ধে ছয় কোটি টাকা আত্মসাৎ এর অভিযোগ

  • প্রকাশিত: শুক্রবার, ২৯ মার্চ, ২০২৪
  • ২২ বার পড়া হয়েছে

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ

গাজীপুরের কালিয়াকৈর উপজেলার ফুলবাড়িয়া ইউনিয়ন ফরেস্ট বনবিট কর্মকর্তা ইলিয়াস হোসেনের বিরুদ্ধে ছয় কোটি টাকা আত্মসাৎ এর অভিযোগ উঠেছে।সরজমিনে গিয়ে জানা যায়,ফুলবাড়িয়া ইউনিয়নের মনতলা মৌজাস্থল পাটোয়ারী চালা ৩ং ওয়ার্ডে কাঁচি কাটা রেঞ্জেরে আওতায়ধীন বিট কর্মকর্তা ইলিয়াস হোসেন স্থানীয় গরীব অসহায় দিন মজুর ও প্রতিবন্ধীদের সাফল্য উপভোগ প্লট দেওয়ার কথা বলে তাদের নিকট থেকে ও প্রায় ৪০০শত গরীব অসহায় লোকের কাজ থেকে কাগজপত্র ও স্টাম্প তৈরির কথা বলে ২০ থেকে ৫০ হাজার টাকা হাতিয়ে নিয়েছেন।দীর্ঘ চার মাস সে আজকাল করে ঘুরাচ্ছে ভুক্তভোগী (১) এরশাক( ২) সেকেন্দার ( ৩) চাঁন মিয়া এবং ২ নং ওয়ার্ড মেম্বার মোহাম্মদ চান মিয়া বলেন আমার নিকট থেকে এক লক্ষ টাকা পার্টিসেভেটি পল্ট দেওয়ার কথা বলে নিয়েছেন,আমি টাকা ফেরত চাহিলে আমাকে বিভিন্ন ভাবে ভয়ভীতি দেখাচ্ছে।প্রতারক ইলিয়াস হোসেন অসহায় গরিব মানুষের সাথে মিথ্যা আশ্বাস দিয়ে বলছে, বাগান পল্ট করার জন্য যে টাকা নিচ্ছি তা সরকারি বন কর্মকর্তার নির্দেশে নেওয়া হচ্ছে। আমাদের একটা উপ সফল্য পার্টিসেপটি দিয়ে থাকেন।যখনি প্রতারক বন বিট কর্মকর্তা ইলিয়াস এর মিথ্যা নাটক জানাজানি হয় তখনই সে মিথ্যা মামলা দিয়ে হয়রানি করার হুমকি দিচ্ছে।এ ভাবেই প্রতারিত হচ্ছে শত শত মানুষ আতঙ্কে দিন কাটাচ্ছে অতচ বিষয়টি দেখার মতো কেউ নেই।২০১০ সালে বন মন্ত্রণালয় শিফল্য পার্টিসিপেট এর জন্য ১০ লক্ষ টাকা অনুদান দেন। প্রকাশ থাকে যে গরীব অসহায় মানুষগুলো এ টাকাগুলো নিয়ে ঠিক মত বাগান পরিচালনা করতে পারে।ফরেস্ট স্টাফ কাঁচিকাটা বনবিট কর্মকর্তা ইলিয়াস হোসেন ও কাঁচি কাটার রেঞ্জ এর কর্মকর্তা সৈয়দ আনিসুর রহমান সহ এ প্রতারনায় জড়িত।এর আগে বিভিন্ন রেঞ্জে থেকে বিট কর্মকর্তার সাথে মিলে কাজ করতে আসছিলেন তিনি ঐখানে বিভিন্ন লোকের কাছ থেকে বনের জায়গা ও পল্ট দেওয়ার কথা বলে বিভিন্ন মানুষের কাছ থেকে লক্ষ লক্ষ টাকা হাতিয়ে নিয়েছেন।

তিনি একই প্রতারনা করেই যাচ্ছে তার সাথে কথা বললে শোনা যায় আমাদের লোকজন কোন কাগজপত্র দেন নাই আর আমি এই বিষয় কিছু জানি না।কিন্তু দুঃখের বিষয় সে রানিং অবস্থায় থাকতে তার বিট কর্মকর্তা ছয় কোটি টাকা আত্মসাৎ করল সে কিছুই জানে না । এটা একটা আজব কথা শুনি,এখানে শেষ নেই তিনি বলেন আমি শোনার তিন দিন আগে তাকে বদলি করার ট্রান্সফার এসেছে এ বিষয়ে আমি কিছু জানি নাই, কালকে জানলাম এখন আমার কিছু করার নেই সে এখন বর্তমানে আমার অতিথি বলে জানান।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো সংবাদ পড়ুন
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত
𝐂𝐫𝐚𝐟𝐭𝐞𝐝 𝐰𝐢𝐭𝐡 𝐛𝐲: 𝐘𝐄𝐋𝐋𝐎𝐖 𝐇𝐎𝐒𝐓